‘এমন হুমকি পৃথিবী আগে কখনোই দেখেনি’, ঐক্যবদ্ধের আহ্বান যুক্তরাষ্ট্রের

0
122

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও বলেছেন, ‘মুক্তবিশ্ব যদি চীনা কমিউনিস্টদের পাল্টাতে না পারে, তাহলে চীন আমাদের বদলে দেবে।’ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের জন্য চীনের ভয়াবহ চিন্তাভাবনা প্রতিরোধে নতুন গণতান্ত্রিক জোট গঠনের আহ্বান জানিয়ে বৃহস্পতিবার (২৩ জুলাই) এ মন্তব্য করেন তিনি।ক্যালিফোনিয়ার নিক্সন লাইব্রেরিতে দেয়া বক্তব্যে মার্কিন শীর্ষ কূটনীতিক বলেন, অতিসত্বর ব্যবস্থা গ্রহণ করা না হলে চীন আমাদের স্বাধীনতাকে ভূলুণ্ঠিত করবে। ধ্বংস করে দেবে আইনের শাসনে পরিচালিত বিশ্বব্যবস্থাকে। ‘আমরা যদি এখন হাত-পা গুটিয়ে বসে থাকি তাহলে আমাদের আগামী প্রজন্মকে চীনা কমিউনিস্ট পার্টির করুণায় চলতে হতে পারে। মুক্তবিশ্ব আজ বেইজিংয়ের প্রাথমিক হুমকির মুখোমুখি, বলেন পম্পেও।তিনি বলেন, ‘এ ধরনের নতুন হুমকির মুখোমুখি পৃথিবী আগে কখনোই হয়নি। সোভিয়েত ইউনিয়ন মুক্তবিশ্ব থেকে বিচ্ছিন্ন ছিল। কিন্তু চীনা কমিউনিস্টরা ইতোমধ্যে আমাদের দোরগোড়ায়।’ করোনা মহামারীকালে শুরু হওয়া ওয়াশিংটন-বেইজিংয়ের চলমান নাটকীয় উত্তেজনার মধ্যে পম্পেও এমন তীর্যক মন্তব্য করলেন।ট্রাম্প প্রশাসনের অভিযোগ, শুরুতে চীন করোনা ছড়িয়ে পড়ার তথ্য লুকাতে চেয়েছে। তারপর মহামারীর তীব্রতা সম্পর্কে ভুল তথ্য দিয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে বিভ্রান্ত করেছে। সেই অভিযোগের পুনরাবৃত্তি করে পম্পেও বলেন, ‘চীনের জনগণের কথা বলছি না। আমরা যদি উহানের চিকিৎসকদের কাছ থেকে তথ্য পেতাম, তাদেরকে যদি নোভেল করোনা ভাইরাসের ভয়াবহতা সম্পর্কে সতর্ক করতে দেয়া হতো, একবার ভাবুন, তাহলে পৃথিবী আরো অনেক সুন্দর হতে পারতো।’এসময় তিনি ডা. লি ওয়েনলিয়াং বিষয়ে ঈঙ্গিত করেন। ডা. ওয়েনলিয়াং ডিসেম্বরে করোনার তীব্রতা সম্পর্কে সতর্কতা উচ্চারণ করতে গিয়ে চীন সরকারের তীব্র আক্রমণের শিকার হন। তখন তার বিরুদ্ধে মিথ্যে বক্তব্যের অভিযোগ আনা হয়েছিল। উহান সেন্ট্রাল হাসপাতালে চিকিৎসা দিতে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ফেব্রুয়ারিতে মারা যান ডা. ওয়েনলিয়াং।‘আজ আমাদের সবাইকে মাস্ক পড়তে হচ্ছে। বিশ্বব্যাপী চীনা কমিউনিস্ট পার্টির বিশ্বাসঘাতকতার কারণে মহামারীতে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা গুনতে হচ্ছে।’ বলেন পম্পেও।চীনকে মোকাবিলার জন্য জাতিসংঘ, ন্যাটো, জি-৭ এবং জি-২০ জোটের সদস্য দেশগুলোকে অর্থনৈতিক, সামরিক, এবং কূনৈতিকভাবে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান। বলেন, ‘সাহসিকতার সঙ্গে সমন্বিত শক্তি প্রয়োগ করতে পারলে চীনা হুমকি মোকাবিলা করা সম্ভব।’‘হয়তো এটাই সময় সমমনা দেশগুলোকে নিয়ে নতুন দল, নতুন গণতান্ত্রিক জোট গঠনের। যদি মুক্তবিশ্ব কমিউনিস্ট চীনকে পরিবর্তন করতে না পারে তাহলে, তারা আমাদের নিশ্চিতভাবে পরিবর্তন করে দেবে। নতুন চিন্তাভাবনায় এগুতে হবে। কারণ তারা আমাদের পুরানো পরিকল্পনায় অভ্যস্ত হয়ে গেছে। অথবা সেই পরিকল্পনা থেকে সরে আসতে আমাদের বুঝাতে তারা সক্ষম হয়েছে।’‘চীনা কমিউনিস্ট পার্টি থেকে আমাদের স্বাধীনতা রক্ষার মিশন সময়ের দাবি। সেই মিশনে নেতৃত্ব দিতে যুক্তরাষ্ট্র প্রস্তুত।’ বলেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে