ইউএনও হত্যাচেষ্টা মামলায় অভিযোগপত্র গ্রহণ, অব্যাহতি ৪

0
21

দিনাজপুর ঘোড়াঘাট উপজেলার সাবেক নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াহিদা খানম হত্যাচেষ্টা মামলার অভিযোগপত্র গ্রহণ করেছেন আদালত। মামলাটি বিচারের জন্য চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাঠানো হয়েছে। আর এ মামলা থেকে চারজনকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।
 
বুধবার (২ ডিসেম্বর) দিনাজপুর পুলিশ কোর্ট পরিদর্শক মো. আবদুল মজিদ জানান, চাঞ্চল্যকর এ মামলার শুনানির দিন ধার্য ছিল। দুপুর ২টার দিকে জেলহাজতে থাকা আসামি বাগানের মালি রবিউল ইসলামকে (২৭) হাজির করা হয়।
আর জামিনে থাকা আসাদুল হক (২৫) নাহিদ হোসেন পলাশ (২৭), নবিউল ইসলাম (৩৫) ও সান্টু রবি দাস আদালতে হাজিরা দেন এবং মামলা থেকে অব্যাহতি চেয়ে আবেদন করেন।

বিচারক সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আঞ্জু মনোয়ারা বেগম এ মামলার অভিযোগপত্র গ্রহণ করেন।এর আগে তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবি পুলিশ পরিদর্শক মো. ইমাম জাফর আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। এ মামলায় অভিযুক্ত রবিউল ইসলামকে রেখে অপর ৪ জনকে মামলার দায় থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। সেই সঙ্গে মামলাটি বিচারের জন্য চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে বদলি করা হয়। মামলার অভিযুক্ত আসামি রবিউল ইসলামকে বুধবার বিকেলে পুনরায় জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২ সেপ্টেম্বর মধ্যরাতে দিনাজপুর ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াহিদা খানমের সরকারি বাসভবনে প্রবেশ করে দুষ্কৃতকারী। এ সময় হাতুড়ি দিয়ে ওয়াহিদা খানম ও তার বাবা ওমর আলী শেখকে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে দুষ্কৃতকারী। ওয়াহিদা খানম ও তার বাবাকে প্রথমে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকার নিউরোসায়েন্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।এ ঘটনায় ইউএনও ওয়াহিদার বড় ভাই বাদী হয়ে গত ৩ সেপ্টেম্বর ঘোড়াঘাট থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলাটি ডিবি পুলিশ তদন্ত করে, মামলার আলামত ও সাক্ষ্যপ্রমাণসহ গত ২১ নভেম্বর আদালতে অভিযোগপত্র পেশ করে।