এক মাস পর আশার খবর স্পেনে

0
172


গত এক মাস ধরে করোনার তাণ্ডবে নাজেহাল দশা ইউরোপের। তবে গত কয়েকদিন ধরে এই মহাদেশের বিভিন্ন দেশে করোনার প্রকোপের গতি ধীর হতে শুরু করেছে। করোনার তাণ্ডবে মৃত্যুপরীতে পরিণত হওয়া স্পেনে গত এক মাসের মধ্যে সবচেয়ে কমসংখ্যক মানুষের প্রাণহানি ঘটেছে গত ২৪ ঘণ্টায়।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি বলছে, স্পেনের জন্য কিছুটা আশাব্যাঞ্জক খবর; দেশটিতে গত একমাসের মধ্যে করোনাভাইরাস সম্পর্কিত মৃত্যু সর্বনিম্ন পর্যায়ে নেমে এসেছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় মারা গেছেন ৩৬৭ জন; আগের দিন এই সংখ্যা ছিল ৪৪০। এ নিয়ে দেশটিতে করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাড়িয়েছে ২২ হাজার ৫২৪ জনে; যা বিশ্বে তৃতীয় সর্বোচ্চ।

তবে মৃত্যুর সংখ্যা কমলেও দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা কিছুটা বেড়েছে। ২৪ ঘণ্টায় ইউরোপের এই দেশে নতুন করে করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৬ হাজার ৭৪০ জন; মোট ২ লাখ ১৯ হাজার ৭৬৪। 

শুক্রবার সংবাদ সম্মেলনে স্পেনের জরুরি স্বাস্থ্য সমন্বয়ক ফার্নান্দো সিমন বলেন, আমরা প্রত্যাশা করছি, প্রাণহানির এই নিম্নমুখী ধারা আগামী দিনে আরও কমে আসবে। তবে এই ধারা আমরা বিধি-নিষেধ কীভাবে মেনে চলছি সেটির ওপর নির্ভর করবে।

দেশটিতে লকডাউন শিথিল করার পর বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান ও কল-কারখানা চালু করা হয়েছে। অর্থনীতির চাকা সচল করতে আগামী মাস থেকে লকডাউন আরও শিথিল করার ঘোষণা দিয়েছে দেশটির সরকার।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীন থেকে বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন এক লাখ ৯১ হাজার ৯০০ জন এবং আক্রান্ত হয়েছেন ২৭ হাজার ৪৭ হাজার ২৭০ জন। তবে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৭ লাখ ৫৭ হাজার ৪২৭ জন।

করোনায় সবচেয়ে বেশিসংখ্যক মানুষের প্রাণহানি ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে; দেশটিতে ৫০ হাজার ২৪৩ জনের প্রাণ কেড়েছে। এরপরই দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৫ হাজার ৫৪৯ জন মারা গেছেন ইতালিতে; তারপরই স্পেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে