কর্ণফুলীতে গৃহবধূকে হত্যার ঘটনায় স্বামী পটিয়া থেকে গ্রেফতার

0
6

চট্টগ্রামের কর্ণফুলীতে নাছিমা বেগম (৩৮) নামে গৃহবধূকে হত্যার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় নিহতের স্বামী মোহাম্মদ সোলায়মান (৪০) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রোববার (৭ জুলাই) সকাল ১১টার দিকে ঘটনা পরবর্তী টানা ৪৮ ঘন্টার বিরতিহীন অভিযানে এসআই মো. মোবারক হোসেন, এসআই মো. মিজানুর রহমান ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই আব্দুল্লাহ আল নোমানের টিম পটিয়া উপজেলার শান্তিরহাটের মালিপাড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিএমপি বন্দর জোনের উপ পুলিশ কমিশনার (ডিসি) শাকিলা সোলতানা।

এ বিষয়ে কর্ণফুলী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. জহির হোসেন বলেন, ‘গৃহবধূ কে খুনের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে স্বামীকে গ্রেফতার করেছেন। বর্তমানে থানায় রয়েছে।’

গত শুক্রবার (৫ জুলাই) বিকেলে উপজেলার চরলক্ষ্যা ইউনিয়নের তিন নম্বর ওয়ার্ডের খালেক মেম্বার বাড়ির বাড়া বাসায় গার্মেন্টসকর্মী নাছিমা বেগম (৩৮) কে মারধর ও শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করে তার স্বামী মো. সোলায়মান।

মোহাম্মদ সোলায়মান এর বাড়ি পটিয়া শান্তিরহাটের মালিপাড়া। নাছিমার পিতা চরলক্ষ্যা ইউনিয়নের সেকান্দর মিয়া।

ঘটনার দিন রাত একটার দিকে নাছিমার দ্বিতীয় স্বামী সোলায়মান ভাড়া বাসায় এসে তার স্ত্রীকে মারধর করে খুন করে ভোরে পালিয়ে যায়। পরে সকালে ছেলে ইমন ঘরে এসে তার মা’কে ডাকলে কোন সাড়া-শব্দ না পেয়ে হাত-পা ধরে দেখে হাত-পা ঠান্ডা হয়ে আছে। ছেলেটি আশে-পাশে তার মামা-মামী, নানা-নানুদের ডাকলে স্ট্রোক করে মারা গিয়েছে মনে করে বিছানা থেকে নামিয়ে মৃত দেহ সৎকারের ব্যবস্থা করতে শুরু করে।

পরে তাঁরা লাশের দাফনের ব্যবস্থা করতে গিয়ে দেখেন মৃত নাছিমার গলায় কালো দাগ এবং জিহ্বা বাহির করে দাঁতে কামড় দেওয়া অবস্থা লক্ষ্য করেন। এটা দেখে সন্দেহ জাগলে তারা ৯৯৯ এ কল করেন। পরে কর্ণফুলী থানা পুলিশ এসে রহস্য ভেদ করেন।