খুলনায় ১৮ রুটে যাত্রীবাহী বাস বন্ধ, ভোগান্তিতে সাধারণ মানুষ

0
17

পূর্বঘোষণা ছাড়াই খুলনায় পরিবহন মালিক ও শ্রমিকদের ডাকা ২৪ ঘণ্টার কর্মবিরতি চলছে। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন সাধারণ মানুষ। অঘোষিত এ কর্মসূচিতে খুলনা থেকে দেশের ১৮ রুটে যাত্রীবাহী বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে।_শুক্রবার সন্ধ্যার পর থেকে খুলনার সোনাডাঙ্গা বাস টার্মিনাল থেকে অভ্যন্তরীণ ও দূরপাল্লার কোনো বাসই ছেড়ে যায়নি।বাস শ্রমিক নেতাদের দাবি, খুলনা মালিক সমিতির সঙ্গে সাতক্ষীরা মালিক সমিতির দ্বন্দ্বের জেরে পূর্বঘোষিত আলটিমেটাম অনুযায়ী এ কর্মবিরতি পালন করছেন তারা।শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত এ কর্মসূচি চলবে বলে জানান শ্রমিক নেতারা।এদিকে হঠাৎ করে চলা এ কর্মবিরতি ভোগান্তিতে ফেলেছে জরুরি প্রয়োজনে যাত্রা করা সাধারণ মানুষকে। বিশেষ করে চিকিৎসাসহ নানা প্রয়োজনে বেনাপোল হয়ে ভারতে যাওয়া বাংলাদেশিদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।এদিকে তবে বিএনপি নেতাদের দাবি, দলটির বিভাগীয় সমাবেশ ঘিরে এ অপতৎপরতা চালানো হচ্ছে।সাংবাদিকদের মহানগর বিএনপির সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু বলেন, পরিবহন বন্ধ করা মানে সমাবেশ হবে না এটা ভাবার কোনও অবকাশ নেই। পরিবহন বন্ধ রাখা মানে আমাদের গণতান্ত্রিক অধিকারের ওপর নগ্ন হস্তক্ষেপ। তিনি নির্বঘ্নে সমাবশে সফল করতে প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবি, জিয়াউর রহমানের বীর উত্তম বাতিলের প্রতিবাদ ও বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিসহ দেশের ছয় সিটিতে সাবেক মেয়র প্রার্থীদের নেতৃত্বে খুলনাতে মহাসমাবেশের পূর্বঘোষিত কর্মসূচি চলছে।