জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে টি-টোয়েন্টি সিরিজ বাংলাদেশের

0
5

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সর্বোচ্চ ১৬৪ রান টপকিয়ে জয়ের রেকর্ড ছিল বাংলাদেশের। কিন্তু তিন ম্যাচ সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টিতে ১৯৪ রানের বিশাল লক্ষ্য বেঁধে দেয় স্বাগতিকরা। জিততে হলে গড়তে হবে রেকর্ড। জিম্বাবুয়ের সেই রান পাহাড় টপকে রেকর্ড গড়েই সিরিজ জিতে নিলো টাইগাররা।

অঘোষিত ফাইনালে বাংলাদেশের বিপক্ষে রানের পাহাড় গড়েছে জিম্বাবুয়ে। আগে ব্যাট করতে নেমে ৫ উইকেটে ১৯৩ রান সংগ্রহ করেছে স্বাগতিকরা। জবাবে ১৯৪ রানের বিশাল লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুটা ভালোই করেছিলেন সৌম্য সরকার। তবে তাকে অনুসরণ করতে পারলেন না নাঈম শেখ। ব্লেসিং মুজারাবানির করা ফুল লেংথের বলটা জায়গায় দাঁড়িয়ে তুলে মারতে চেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু মিড-অফে লুক জংওয়ের তালুবন্দি হয়ে সাজঘরে ফেরেন এই ওপেনার।

শুরুর ধাক্কা কাটিয়ে উঠতে সৌম্য সরকারের সঙ্গে সতর্ক হয়ে ব্যাট করছিলেন সাকিব আল হাসান। তবে জিততে হলে বলে বলে রান তুলতে হবে এই মন্ত্রে উজ্জীবিত হয়ে লুক জংওয়ের পরপর দুই বলে ছক্কা হাঁকান তিনি। কিন্তু তৃতীয় বলে আবারও তুলে মারতে গিয়ে ক্যাচ তুলে দেন এই অলরাউন্ডার। বদলি ফিল্ডার মুসাকান্দার হাতে ক্যাচ দিয়ে বিদায় নেয়ার আগে ১৩ বলে ২৫ রান করেন সাকিব।

৭০ রানে দুই উইকেট হারিয়ে তৃতীয় উইকেটে জুটি বাঁধেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও সৌম্য সরকার। ১২তম ওভারের চতুর্থ বলে লুক জংওয়েকে বাউন্ডারি মেরে অর্ধশতক তুলে নেন সৌম্য। এটি তার ক্যারিয়ারের পঞ্চম হাফ সেঞ্চুরি। তাদের ব্যাটে পরিকল্পনা মতোই এগোচ্ছিল বাংলাদেশ। কিন্তু মাহমুদউল্লাহর সঙ্গে সৌম্যের ৬৩ রানের জুটি আর বাড়াতে দেননি লুক জংওয়ে। তার দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হয়ে বদলি ফিল্ডার মুসাকান্দার তালুবন্দি হয়ে বিদায় নেয়ার আগে ৪৯ বলে ৯টি চার আর এক ছক্কায় ৬৮ রান করেন তিনি।