ঢাকা-বেইজিং ফ্লাইট চালু করছে চায়না সাউদার্ন এয়ারলাইনস

0
5

চাহিদা বাড়তে থাকায় ১৫ জুলাই থেকে ঢাকা-বেইজিং পথে সরাসরি ফ্লাইট চালু করবে চায়না সাউদার্ন এয়ারলাইনস। ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বেইজিংয়ের তাশিং আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের মধ্যে সপ্তাহে দুটি ফ্লাইট পরিচালনা করবে এশিয়ার অন্যতম বৃহৎ এই বিমান সংস্থা। শুরুতে প্রতি সপ্তাহে সোম ও শনিবার ঢাকা থেকে বেইজিংয়ের উদ্দেশে যাত্রা করবে চায়না সাউদার্নের ফ্লাইট।

রাজধানীর একটি হোটেলে গতকাল সোমবার রাতে আনুষ্ঠানিকভাবে ঢাকা-বেইজিং পথে ফ্লাইট চালুর ঘোষণা দেয় চায়না সাউদার্ন এয়ারলাইনস। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী মুহাম্মদ ফারুক খান। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাকায় নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত ইয়াও ওয়েন, ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতি ফেডারেশনের (এফবিসিসিআই) সভাপতি মাহবুবুল আলম, বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিডা) নির্বাহী চেয়ারম্যান লোকমান হোসেন মিয়া, বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান এয়ার কমোডর সাদিকুর রহমান চৌধুরী প্রমুখ।

মন্ত্রী মুহাম্মদ ফারুক খান বলেন, ‘চায়না সাউদার্ন এয়ারলাইনসের সরাসরি ফ্লাইট ঢাকা ও বেইজিংয়ের মধ্যকার বাণিজ্য ও অর্থনৈতিক সম্পর্ক জোরদার করবে। চীনে প্রচুর পর্যটক রয়েছে। তাই ভবিষ্যতে কক্সবাজার ও কুনমিং বিমানবন্দরের মধ্যে সরাসরি ফ্লাইট চালুর বিষয়টিও পর্যালোচনা করছি আমরা।’

চীনা রাষ্ট্রদূত ইয়াও ওয়েন বলেন, রুটটি উভয় পক্ষের জন্য সমান লাভ বয়ে আনবে। দুই দেশের মধ্যে সহযোগিতার সুযোগ আরও প্রসারিত করবে।

এফবিসিসিআই সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন, সংযোগই সবকিছু। সংযোগ ছাড়া কিছুই করা যায় না। চীনা বিনিয়োগকারীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের আমন্ত্রণ জানান তিনি।

জানা গেছে, অত্যাধুনিক এয়ারবাস এ৩২১ নিও এয়ারক্রাফট দিয়ে নতুন এই পথে ফ্লাইট পরিচালনা করবে চায়না সাউদার্ন এয়ারলাইনস। উড়োজাহাজটিতে ১২টি বিজনেস ক্লাস ও ১৮৭টি ইকোনমি ক্লাস মিলিয়ে মোট ১৯৯টি আসন রয়েছে।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন চায়না সাউদার্ন এয়ারলাইনসের এ দেশীয় এজেন্ট অ্যামনেস্টার সলিউশনসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হাবিব উল্লাহ, চায়না সাউদার্ন এয়ারলাইনস বাংলাদেশের মহাব্যবস্থাপক জি কাংজিয়া প্রমুখ।