তৃতীয়বারের জন্য পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতায় আসছে মমতা

২৯২টি আসনের মধ্যে তৃণমূল কংগ্রেস এগিয়ে আছে ২০৭ আসনে। অপরদিকে বিজেপি এগিয়ে আছে ৮১ আসনে।

0
18

গৌতম মল্লিক, কলকাতা: সব ঠিক থাকলে পশ্চিমবঙ্গের তৃতীয় বারের জন্য ক্ষমতায় আসতে চলেছে তৃণমূল কংগ্রেস। ফলে আরও একবার বাংলার মুখ্যমন্ত্রী হতে চলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনের ভোট গণনার সবশেষ তথ্য অনুযায়ী ২৯২টি আসনের মধ্যে তৃণমূল কংগ্রেস এগিয়ে আছে ২০৭ আসনে। অপরদিকে বিজেপি এগিয়ে আছে ৮১ আসনে।

রাজ্যের তৃতীয় শক্তি সংযুক্ত মোর্চা দুটি আসনে এগিয়ে থাকলেও বাম ও কংগ্রেস এখনও পর্যন্ত খাতাই খুলতে পারেনি। যে দুটি আসনে সংযুক্ত মোর্চা এগিয়ে আছে তা ফুরফুরা শরীফের পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকীর দল ইন্ডিয়ান সেক্যুলার ফ্রন্টের দুই প্রার্থী।

বেলা ২টার দিকে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয় সাংবাদিকদের ফলাফলের প্রশ্নের জবাবে বলেন, মনে হচ্ছে রাজ্যবাসী মমতাকেই মুখ্যমন্ত্রী করবে বলে ঠিক করে ফেলেছেন, তবে আমরা রাত অবধি অপেক্ষা করবো।
ভোট গণনার শুরুর দিকে নন্দীগ্রামে প্রতিদ্বন্দী প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারীর চেয়ে পিছিয়ে ছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যদি মমতা হেরে যায় আর তার দল তৃণমূল জেতে তবে কি তিনি মুখ্যমন্ত্রী হতে পারবেন? এমন প্রশ্নও ঘুরছিল জনমনে। ভারতীয় নির্বাচনের সংবিধান বলছে, সে ক্ষেত্রে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে অন্য কোনো আসন থেকে জিততে হবে। তবেই তিনি মুখ্যমন্ত্রীর দাবিদার হতে পারেন।

প্রসঙ্গত, মুর্শিদাবাদ জেলায় সামশেরগঞ্জ এবং জঙ্গিপুর, দুই আসনে ভোট হবে ১৬ মে। ওই দুই কেন্দ্রে সংযুক্ত মোর্চার দুই প্রার্থী করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। সে কারণেই ভোট পিছিয়েছে নির্বাচন কমিশন। হতে পারে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ওই দুটি আসনের মধ্যে কোনও একটি বেছে নিতে পারেন অথবা তার কোনো পছন্দের আসন থেকেও তিনি প্রার্থী হতে পারেন। সে ক্ষেত্রে তৃণমূলের বিজয়ী কোন বিধায়ককে জেতা আসন থেকে পদত্যাগ করতে হবে।

তবে সম্পূর্ণটাই নির্ভর করছে ভাবি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ওপর। তিনি কী নির্ধারণ করবেন। তবে পশ্চিমবঙ্গের ফলাফল যেদিকে যাচ্ছে শেষ পর্যন্ত বলা যেতেই পারে রাজ্যে তৃতীয়বারের মতো ক্ষমতায় আসতে চলেছে মমতার দল তৃণমূল কংগ্রেস।

শেষ খবর অনুযায়ী তৃণমূল প্রার্থী ভারতের সাবেক ক্রিকেটার মনোজ তিওয়াড়ী ৩২ হাজার ভোটে জয়লাভ করেছেন।