নওগাঁর মোকামে লকডাউনের অজুহাতে বেড়েছে চালের দাম

0
8

নওগাঁর মোকা‌মে প্রকারভে‌দে কেজিতে ২ থে‌কে ৩ টাকা বেড়েছে চা‌লের দর। লকডাউনের কারণে পরিবহন খরচ বাড়ায় দাম বৃদ্ধি বলছেন ব্যবসায়ীরা। সপ্তাহের ব্যবধানে হঠাৎ দাম বৃদ্ধিতে নিম্ন আয়ের মানুষ পড়েছে বিপাকে। চা‌লের বাজার সহনীয় রাখ‌তে প্রশাস‌নের নজরদারির দাবি জানিয়েছেন ক্রেতারা।করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সরকার বুধবার (১৪ এপ্রিল) থেকে দেশজুড়ে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপের ঘোষণা দিয়েছে। এরপরই চালের বাজার আবারো অস্থির হয়ে উঠেছে।  
সরকারি এ ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে নওগাঁর চালের পাইকারি মোকামে বস্তাপ্রতি ১৫০-২০০ টাকা দাম বাড়িয়ে দেন মিলাররা।পাইকারি বাজারের চালের দাম বৃদ্ধির আঁচ লাগে খুচরা বাজারেও। প্রকারভেদে প্রতি কেজি চাল ২-৩ টাকা বেশি দিয়ে কিনতে হচ্ছে ক্রেতাদের।আর বস্তাপ্রতি ১৫০-২০০ টাকা বেশি দিয়ে কেনা চাল খুচরা বাজারে বিক্রি করতে হিমশিম খাচ্ছেন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা বলেও জানান খুচরা চাল বাজার সমিতির সভাপতি শ্রী উত্তম কুমার।  দাম বৃদ্ধির জন্য কঠোর বিধিনিষেধে পরিবহনে অতিরিক্ত ভাড়ার অজুহাত দেখাচ্ছেন নওগাঁ জেলা চালকল মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. ফরহাদ হোসেন।সময় নিউজকে মো. ফরহাদ হোসেন বলেন, পরিবহন খরচ বেড়েছে, পরিবহন মালিকরা বলছেন চাল নিয়ে যাওয়া হচ্ছে, কিন্তু ফিরে আসার সময় ফাঁকা আসতে হচ্ছে ট্রাকগুলোকে। যেহেতু খরচটা বৃদ্ধি পাচ্ছে সেহেতু বাড়তি খরচটা চালের দামের ওপর গিয়েই পড়বে।     

মালিক সমিতি জানায়, নওগাঁর আড়ত থেকে গড়ে প্রতিদিন ৭০ থেকে ৮০ ট্রাক চাল রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় সরবরাহ করা হয়।