বিতর্কিত আইনের প্রতিবাদে রণক্ষেত্র ফ্রান্স

0
13

বিক্ষোভে উত্তাল ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিস। শনিবার (২৮ নভেম্বর) করোনা উপক্ষো করে প্যারিসের রাস্তায় বিক্ষোভে অংশ নেন লাখ লাখ মানুষ। শুধু প্যারিস নয় ফ্রান্সজুড়েই চলে বিক্ষোভ। আগুন জ্বালিয়ে এ সময় সরকারবিরোধী স্লোগানে মুখর হয় চারপাশ।কর্মক্ষেত্রে পুলিশের ছবি প্রকাশে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে আইন প্রণয়নের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে ফ্রান্স। সরকারের এমন সিদ্ধান্তের প্রতিবাদেই এ বিক্ষোভ। এতে অংশ নেন, সাংবাদিক, শিক্ষার্থী, বামপন্থি, অভিবাসী অধিকার সংগঠনসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ। বিক্ষোভকারীরা বলছেন এ আইন পাস হলে পুলিশের নির্যাতনের বিরুদ্ধে কিছু বলা যাবে না, পুলিশি সহিংসতার ছবি প্রকাশ করা যাবে না। প্রস্তাবিত এ আইনকে গণমাধ্যমের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ বলে মনে করছেন তারা।সাধারণ মানুষ বলছেন, ‘পুলিশ সহিংসতা না করলে তাদের সহিংসতার ছবি তোলারও প্রয়োজন পড়বে না। তার মানে পুলিশ সহিংস সেটা প্রমাণ হচ্ছে। আমরা ক্ষুব্ধ কারণ এদেশের সরকার জনগণের কথা শোনার প্রয়োজন মনে করে না, উল্টো এ রাষ্ট্র দমন করতে চায়।’পুলিশের পক্ষে আরও আইন আছে, নতুন করে আর দরকার নেই। প্রস্তাবিত আইনটি পাস হলে, জনগণের অধিকার ক্ষুণ্ণ হবে।দিন গড়িয়ে রাত হলেও চলতে থাকে বিক্ষোভ। দাঙ্গা পুলিশ বাধা দিলে সংঘর্ষ বেঁধে যায় তাদের সঙ্গে। পুলিশকে লক্ষ্য করে পানির বোতল আর পাথর ছুড়লে বিক্ষোভকারীদের দমনে কাঁদানে গ্যাস ও জলকামান নিক্ষেপ করে পুলিশ।২০১৮ সালে ইয়েলো ভেস্ট আন্দোলন শুরু হওয়ার পর থেকে দেশটিতে পুলিশি কঠোরতা বেড়ে যায়, এরপর থেকে পুলিশের নানা কর্মকাণ্ডে ক্ষুব্ধ ফরাসিরা। 

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে