ভারতের অনুমতি ছাড়া চীনে যান না প্রধানমন্ত্রী, মন্তব্য রিজভীর

0
13

চীনে যাওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ভারতের অনুমতি নিতে হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, চীনে যাওয়ার জন্য শেখ হাসিনাকে অনুমতি নিতে হয়েছে। দিল্লির অনাপত্তি সার্টিফিকেট নিয়ে চীনের কাছে যেতে হচ্ছে। আওয়ামী লীগের মন্ত্রীরা বলছেন— শেখ হাসিনা চীনে যাচ্ছেন তাতে ভারতের কোনো আপত্তি নেই। প্রধানমন্ত্রী চীন যেতে ভারতের সার্টিফিকেট নিতে হয়। তাহলে কোথায় আজ স্বাধীনতা?

শুক্রবার (৫ জুলাই) খালেদা জিয়াসহ নেতা-কর্মীদের মুক্তির দাবিতে ঢাকা মহানগর শ্রমিক দল আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিল শেষে এ কথা বলেন তিনি।

রিজভী বলেন, আজকে ভারতের অনুমতি নিয়ে শেখ হাসিনাকে চীন যেতে হয়। লজ্জা আজকে এই জাতির। এই কাজ খালেদা জিয়া করেননি।

শ্রমিকদের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে উল্লেখ করে রিজভী বলেন, আজ কাঁচামরিচের দাম ৩২০ টাকা, শাকসবজির দাম সেঞ্চুরি পার হয়ে গেছে। টমেটোর ডাবল সেঞ্চুরি পার হয়ে গেছে। শ্রমিকরা এই নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি কিনতে পারবে না।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনা সরকারি কর্মকর্তাদের সুযোগ করে দিয়েছেন কোটি কোটি টাকা লুটপাটের। বেনজীর-আজিজদের শুধু এক-দুই কোটি টাকা নয়, হাজার হাজার কোটি টাকা লুটপাটের সুযোগ করে দিয়েছেন। সরকারি কর্মকর্তারা শুধু মুজিব কোট পরে জয় বাংলা শ্লোগান দিয়ে আজকে কোটি কোটি টাকা কামিয়েছেন।

প্রতিটি ক্ষেত্রে শেখ হাসিনার কৌশল ব্যর্থ হয়েছে উল্লেখ করে রিজভী বলেন, সুমন ভুঁইয়াদের কারাগারে নিলে সবুজরা রাজপথে বের হবে। হামলা-মামলা আর গ্রেপ্তার-নির্যাতন করে নেতা-কর্মীদের দমন করা যাবে না। আপনার মূয়ুর সিংহাসন লুটেপুটে ভেঙে চুরমার করে দেবে জনগণ। একনায়কতন্ত্র কায়েম করে হিটলার-মুসোলিনিরা রেহাই পায়নি, আপনিও পাবেন না। অবিলম্বে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিন, বিদেশে চিকিৎসার সুযোগ দিন। সকল রাজবন্দীদের মুক্তি দিন।