ভাসানচর থেকে পালানোর সময় ৪০ রোহিঙ্গা নিয়ে নৌকাডুবি, উদ্ধার ১৫

0
14

নোয়াখালীর ভাসানচর থেকে পালানোর সময় ৪০ জন রোহিঙ্গা শরণার্থীসহ একটি নৌকা ডুবে যাওয়ার পর পনেরো জনকে বিভিন্ন মাছ ধরা ট্রলার জীবিত উদ্ধার করেছে। বাকিরা এখনো নিখোঁজ রয়েছে।

শনিবার (১৪ আগস্ট) রাত সাড়ে ১১টার দিকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন নোয়াখালী পুলিশ সুপার মো. শহীদুল ইসলাম।

কোস্ট গার্ড জানায়, একটি মাছ ধরা নৌকায় করে তারা ভাসানচর থেকে পালানোর সময় আনুমানিক দশ কিলোমিটারের মতো দূরে যেতেই খারাপ আবহাওয়ার কারণে ডুবে যায়। উদ্ধার অভিযান এখনও চলছে বলে জানিয়েছে কোস্ট গার্ড।

উদ্ধারপ্রাপ্তদের মধ্যে ১৪ জন নারী-পুরুষ এবং একটি শিশু রয়েছে। তারা সবাই বিভিন্ন মাছ ধরা ট্রলারে করে আবার ভাসানচরে ফিরে এসেছে। পরিবারসহ পালিয়ে যাচ্ছিলেন এই রোহিঙ্গারা। ধারণা করা হচ্ছে নিখোঁজদের মধ্যে আরও নারী ও শিশু থাকার সম্ভাবনা রয়েছে।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালে মিয়ানমার থেকে প্রায় দশ লাখ রোহিঙ্গা শরণার্থী বাংলাদেশে পালিয়ে আসে। তাদের বেশিরভাগকেই আশ্রয় দেয়া হয়েছে কক্সবাজারের নানা শিবিরে। রোহিঙ্গাদের একটি অংশকে স্থানান্তরের জন্য নোয়াখালীর প্রত্যন্ত দ্বীপ ভাসানচরে একটি আশ্রয়ণ প্রকল্প গড়ে তোলা হয়। যেখানে নানা ধরনের উন্নত সুযোগ-সুবিধা তৈরি করা হয়। গত বছর থেকে কয়েক দফায় ১৯ হাজারের মতো রোহিঙ্গাকে সেখানে স্থানান্তর করা হয়েছে। কিন্তু এর কিছুদিনের মধ্যেই সেখান থেকে পালাতে শুরু করে রোহিঙ্গারা।