ভ্যাকসিন আবিষ্কারে গড় আয়ু বৃদ্ধি পেয়েছে: জাহিদ মালেক

0
8

ভ্যাকসিন আবিষ্কারের ফলে পৃথিবীতে মানুষের গড় আয়ু বৃদ্ধি পেয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, ‘আপনারা জানেন ভ্যাকসিন স্বাস্থ্য খাতের একটি অনন্য চিকিৎসা ব্যবস্থা। ভ্যাকসিন নিলে আমাদের স্বাস্থ্যের ওপর চাপ কমে, শিশুদের অসুখ-বিসুখ কম হয়। এতে করে একটি দেশ ও পরিবারের স্বাস্থ্যসেবা গ্রহণ অর্থনৈতিকভাবে অনেকটা সাশ্রয় হয়।’

তিনি বলেন, ‘এখন আমাদের দেশের মানুষের গড় আয়ু ৭৩ বছর। এটা স্বাধীনতার আগে ৫০ এর নিচে ছিল।’

বৃহস্পতিবার (১০ ডিসেম্বর) দুপুরে বাংলাদেশ কলেজ অফ ফিজিসিয়ান্স অ্যান্ড সার্জনস্ (বিসিপিএস)-এর মিলনায়তনে হাম-রুবেলা টিকাদান ক্যাম্পেইনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

জাহিদ মালেক আরও বলেন, ‘শিশুরাই দেশের ভবিষ্যৎ, আগামী দিনে তারাই বাংলাদেশকে পরিচালিত করবে। কাজেই শিশুদের প্রতি আমাদের যত্নশীল হওয়া প্রয়োজন। এই ভ্যাকসিনের মাধ্যমে শিশুদের ও মায়েদের মৃত্যু ঝুঁকি আমরা কমাতে পারি। বাংলাদেশেও ভ্যাকসিনের কার্যক্রম অভূতপূর্ব সফলতা অর্জন করেছে। আমরা দেশের প্রায় ৯০ ভাগ শিশুদের ভ্যাকসিন দিতে সক্ষম হয়েছি। এ সফলতার কারণে আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত বছর ভ্যাকসিন হিরো খেতাব পেয়েছেন।’

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব আবদুল মান্নান, বিসিপিএস-এর প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক ডা. কাজী দ্বীন মোহাম্মদ, স্বাস্থ্য অধিদফতরের এমএনসিঅ্যান্ডএএইচ অপারেশনাল প্ল্যানের লাইন ডিরেক্টর ডা. মো. শামসুল হক, স্বাস্থ্য অধিদফতরের সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচির (ইপিআই) প্রোগ্রাম ম্যানেজার ডা. মওলা বকস চৌধুরী, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিনিধি ভুপিন্দর কর ও ইউনিসেফের প্রতিনিধি তোমো হোজোমি বক্তব্য দেন।

পরে হাম-রুবেলা টিকাদান কর্মসূচির থিম সং ও বিজ্ঞাপন প্রদর্শনী করা হয়।

হাম-রুবেলা টিকাদান ক্যাম্পেইন আগামী ১২ ডিসেম্বর থেকে ২৪ জানুয়ারি পর্যন্ত চলবে। এ ক্যাম্পেইনের আওতায় দেশের ৯ মাস থেকে শুরু করে ১০ বছরের কমবয়সী প্রায় ৩ কোটি ৪০ লাখ শিশুকে টিকা দেওয়া হবে।