মিতু হত্যা: প্রত্যক্ষদর্শী সেই ছেলে ‘নিখোঁজ’

0
20

ছেলেকে স্কুল বাসে তুলে দিতে গিয়ে ২০১৬ সালের ৫ জুন চট্টগ্রামের জিইসি এলাকায় সন্ত্রাসীদের গুলি ও ছুরিকাঘাতে নিহত হন সে সময়কার পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু। ওই সময় তার সঙ্গে থাকা শিশুপুত্র মায়ের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে তাকে বাঁচানোর চেষ্টা করেন।মামলার তদন্ত করতে গিয়ে পিবিআই বলছে, প্রত্যক্ষদর্শী সেই ছেলের সঙ্গে কথা বলতে চান তারা। কিন্তু এখনও তাকে খুঁজে পাওয়া যায়নি বলে জানান ডিআইজি বনজ কুমার মজুমদার। তার দাবি, এ বিষয়ে সঠিক কোনো তথ্যও দিচ্ছেন না বাবুল আক্তার। বনজ কুমার মজুমদার বলেন, পাঁচ দিনের রিমান্ডের চার দিনেও বাবুল আক্তার তেমন কোনো সহযোগিতা করেননি। তবে, বাবুলের স্বীকারোক্তি না পেলেও তথ্যপ্রমাণ রয়েছে তাদের হাতে, যা দিয়ে তারা কাজ চালিয়ে যাবেন।এদিকে মিতু হত্যা মামলার আরেক আসামি পাঁচ বছর ধরে নিখোঁজ মুসাকেও খুঁজছে পিবিআই। প্রয়োজন হলে বাবুলের কথিত প্রেমিকা গায়ত্রী অমর সিং সঙ্গেও তারা যোগাযোগ করবেন বলে জানান বনজ কুমার মজুমদার।পিবিআই বলছে, মামলার তদন্তের স্বার্থে প্রয়োজনে আবারও রিমাণ্ডে আনা হতে পারে সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারকে।