রূপগঞ্জের কারখানার ধ্বংসস্তূপে মিলল ৪৯ মরদেহ

0
11

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে সজীব গ্রুপের হাশেম ফুড অ্যান্ড বেভারেজ লিমিটেডের কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে অর্ধশতাধিক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে এখন পর্যন্ত ৪৯ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

শুক্রবার (৯ জুলাই) দুপুরে কারখানার পোড়া ধ্বংস্তূপ থেকে এ মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এর আগে বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) বিকেলের অগ্নিকাণ্ডে কারখানা ভবন থেকে লাফিয়ে পড়ে তখনই তিনজনের মৃত্যু হয়।

দুপুর দুইটার দিকে কারখানার সামনে ফায়ার সার্ভিসের ব্রিফিংয়ে জানানো হয়, কারখানার পোড়া ধ্বংসস্তূপ থেকে এখন পর্যন্ত ৪৯ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ভেতরে আরও মরদেহ থাকতে পারে, সেজন্য আরও তল্লাশিতে যাচ্ছেন ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা।jagonews24এর আগে রূপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) শাহ নুসরাত জাহান জাগো নিউজকে জানান, কারখানার ভেতর থেকে অনেকের মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা।

ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা বলেন, আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার পর ছয়তলা ভবনের চতুর্থতলা পর্যন্ত প্রবেশ করা গেছে। সেখান থেকেই এতগুলো মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে কারখানা ভবনের নিচতলায় আগুন লাগে। মুহূর্তেই আগুন ভবনের অন্যান্য তলায় ছড়িয়ে পড়ে। আতঙ্কে শ্রমিকরা ভবনের ছাদে জড়ো হন। ছাদসহ বিভিন্ন তলা থেকে লাফিয়ে পড়েন অনেকে। শুক্রবার (৯ জুলাই) সকাল সাড়ে ১১টা পর্যন্ত ভবনটির পঞ্চম ও ষষ্ঠতলায় আগুন জ্বলছিল। কারখানাটির পঞ্চমতলার একপাশে সেমাই, সেমাই ভাজার তেল, পলিথিন; অপর পাশে কারখানার গুদাম বলে শ্রমিকেরা জানিয়েছেন। কারখানার ষষ্ঠতলায় কার্টনের গুদাম বলে জানা গেছে। টানা ১৮ ঘণ্টা ধরে আগুন জ্বলতে থাকায় ছয়তলা ভবনটিতে ফাটল দেখা দেয়।