লড়াই চলছে, ব্যর্থ ভাবার অবকাশ নেই : গয়েশ্বর

0
7

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, ‘আমাদের লড়াই চলছে। সেখানে আমাদের নিজেদেরকে ব্যর্থ ভাবার কোনো অবকাশ নেই। কোনো লড়াইয়ের ফলাফল স্বল্প সময়ে পাওয়া যায়, কোনোটা দীর্ঘমেয়াদি হয়।’

মঙ্গলবার (২৯ জুন) দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে জিয়াউর রহমান সমাজ কল্যাণ পরিষদ আয়োজিত বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা ও নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

গয়েশ্বর রায় বলেন, ‘এখন একেকজন একেক রকম কথা বলে। একজনের কথার সঙ্গে আরেকজনের কথার কোনো মিল নেই। কারণ এই সরকার তো গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না। শেখ হাসিনাকে গণতন্ত্রের সবক দিয়ে লাভ নাই।’

বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘দেশের সচিবরা, পুলিশরা আজ সরকারের ভাগ্যের বিধাতা। তারা পাপ করছে তাদের পাপের ফসল আজকের পার্লামেন্ট। দিনের ভোট রাতে হয়েছে। এগুলো কারা করেছে? আজকের সংসদকে কি বলবো আমরা? যে পুলিশ রাতের বেলায় চোর ধরে তারাও কিন্তু ভোট চুরি করেছে। সে জন্য আজকে পুলিশের অবস্থান কোথায় গিয়ে দাঁড়িয়েছে?’

তিনি বলেন, ‘আমাদের লড়াই তো বন্ধ হয়নি। লড়াই তো চলছে। সেখানে আমাদের নিজেদেরকে ব্যর্থ ভাবার কোনো অবকাশ নেই। কোনো লড়াইয়ের ফলাফল স্বল্প সময়ে পাওয়া যায়, কোনোটা দীর্ঘমেয়াদি হয়।’

বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘ফাঁসির আসামিকে জামিন দেয়ার নজির রয়েছে। আদালতের কাজ কাউকে খুশি বা অখুশি করা নয়। আমরা ন্যয়বিচার প্রত্যাশা করি।’

গয়েশ্বর আরও বলেন, ‘আমরা মনে করি ১৯৭১ সালে ভারত আমাদেরকে সহযোগিতা করেছে। কিন্তু ভারত মনে করে তারা ইনভেস্ট করেছে। আজ দুটি শক্তি। একটি পশ্চিমে, একটি পূর্বে। একটা চীন, আরেকটা ভারত। দুটো শক্তির উদ্দেশ্য কি? চীন চায় বাংলাদেশে বাণিজ্য করতে। পাশাপাশি ভারত রাজত্বও করতে চায়, বানিজ্যও করতে চায়। এর মাঝখানে আমরা আছি।’

এ সময় বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, কৃষকদল নেতা কে এম রকিবুল ইসলাম রিপন প্রমুখ।