ফিলিস্তিনে ন্যায়বিচার চায় না আমেরিকা: চীন

    0
    35

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ইয়ে ইসরায়েল-ফিলিস্তিন ইস্যু নিয়ে নিজেদের অবস্থান সম্পর্কে আলোচনাকালে বলেন, ফিলিস্তিনের গাজায় চলমান ইসরায়েলি নৃশংসতার বিরুদ্ধে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। আর এজন্য দায়ী যুক্তরাষ্ট্র।

    চীনের বার্তা সংস্থা সিনহুয়াকে তিনি বলেন, জাতিসংঘ সুরক্ষা কাউন্সিলের প্রস্তাবগুলি আন্তরিকভাবে প্রয়োগ করা হয়নি এবং বিশেষত ফিলিস্তিনের একটি স্বাধীন রাষ্ট্র গঠনের অধিকার ক্রমাগত লঙ্ঘন করা হয়েছে।

    তার ভাষ্যমতে, যুক্তরাষ্ট্র বরাবরই আন্তর্জাতিক ন্যায়বিচারের বিপরীতে অবস্থান নিয়েছে। আর সেজন্য নিরাপত্তা পরিষদ ইসরায়েল এবং হামাসের মধ্যে কোনো শান্তি চুক্তিতে বার বার ব্যর্থ হয়। ওয়াং ইয়ে বলেন, জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের উচিত যত তাড়াতাড়ি সম্ভব তাদের মধ্যে শান্তি আলোচনার ব্যবস্থা করা।

    এদিকে ইসরায়েল এবং ফিলিস্তিনিদের মধ্যে সহিংসতাকে “অগ্রহণযোগ্য” বলেছেন পোপ ফ্রান্সিস। ফিলিস্তিনে ইসরায়েলি হামলা নিয়ে প্রথমবারের মতো মুখ খুললেন পোপ ফ্রান্সিস। সেন্ট পিটার্স স্কয়ারে সাপ্তাহিক ভাষণে বিশেষত শিশুদের মৃত্যুর বিষয়টি উল্লেখ করে বলেন, “তারা ভবিষ্যৎ গড়তে চায় না, বরং এটি ধ্বংস করতে চায়”।

    ফিলিস্তিনের গাজা উপকূলে আবারও বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরায়েলি বাহিনী। আজ রবিবার (১৬ মে) চালানো এ হামলায় ১৩ শিশুসহ অন্তত ৩৩ জন ফিলিস্তিনি নাগরিক নিহত হয়েছেন। মাটির সঙ্গে মিশিয়ে দেওয়া হয়েছে দুটি আবাসিক ভবন।

    গত ৭ দিন ধরে গাজা উপত্যকায় ১৮১ জনের বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। এর মধ্যে অন্তত ৫২ জন শিশু। আহত হয়েছে হাজারের বেশি মানুষ। পশ্চিম তীরে ইসরায়েলি বাহিনী অন্তত ১৩ জনকে হত্যা করেছে। আর গাজা থেকে ছোড়া রকেট হামলায় ২ শিশুসহ মারা গেছে অন্তত ১০ ইসরায়েলি। গ্লোবাল টাইমস।