সাংবাদিক পরিচয়ে মামলা করতে গিয়ে আটক মুদি দোকানি

0
56


সেলিম চৌধুরী ঃ সিএনএন বাংলাদেশ ঃ- নিজেকে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে আদালতে মামলা করতে গিয়ে আটক হয়ে হাজতে গেল মোহাম্মদ আইয়ুব নামে এক মুদি দোকানি। সে আনোয়ারা উপজেলার বরুমছড়া গ্রামের মোঃ শফির পুত্র।
বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) সকাল ১১টায় চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত-১ এর বিচারক মো. শফি উদ্দিন তাকে আটকের আদেশ দেন।
আদালত সূত্র জানায়, মোহাম্মদ আইয়ুব (৪০) একজন মুদি দোকানদার। তিনি ‘দৈনিক বর্তমান কথা’ পত্রিকার চান্দগাঁও প্রতিনিধি ও ‘তিতাস টিভি’র বিশেষ প্রতিনিধি পরিচয় দিয়ে চন্দনাইশের মোসলেম উদ্দিন নামে একজনের বিরুদ্ধে এক লাখ টাকার চাঁদাবাজির মামলা করতে যান। মামলার আর্জিতে তিনি গত ২৮ নভেম্বর বহদ্দারহাট এলাকার একটি রেস্টুরেন্টে অবস্থানকালীন সময়ে আসামিদের হামলার শিকার হন বলে দাবি করেন। এসময় তার সঙ্গে থাকা টাকা ও পেনড্রাইভ ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ ও আনেন আইয়ুব। তার অসংলগ্ন কথাবার্তায়
সন্দেহ হলে বিচারক তাকে বলেন, তার পরিচয় পত্র দেখাতে বলেন, তখন তিনি কতগুলো ভিজিটিং কার্ড দেখান
তার নিয়াগকারী প্রতিষ্টানের ঠিকানা ও ফোন নাম্বার চাইলে তাও দিতে ব্যর্থ হলে আদালত তাকে তাৎক্ষণিক হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।
পরে আদালতে বিচারিক কার্যক্রম শেষে তার আইনজীবী আদালতের কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করলে আদালত সাংবাদিক পরিচয় দানকারী মুদির দোকানীকে এক লাইন শুদ্ধ করে বাংলা লিখতে বলেন
আপনি তো সাংবাদিক। লিখেন ” আমার পরিবারের জন্য করোনার প্রতিষেধক প্রয়োজন “-এই লাইনটি খাতায় লিখে দিন।
’এসময় সাংবাদিক পরিচয় দেওয়া আইয়ুব তা লিখতে পারেননি। আইয়ুব পরে স্বীকার করেন- তিনি একজন মুদি দোকানদার, সাংবাদিক নন। পরে ৩ ঘণ্টা পর দুপুর ২টার দিকে আর কোন দিন সাংবাদিক পরিচয় দিবে না মর্মে মুচলেকা নিয়ে আইনজীবীর জন্মায় তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। এসময় আদালতে উপস্থিত চট্টগ্রাম আদালতের আইনজীবী সেলিম চৌধুরী বলেন, আইয়ুব নামের ওই ভুয়া সাংবাদিক চাঁদাবাজির মামলা করতে গেলে বিচারক তাকে আটক করে হাজতে পাঠান। কারণ তিনি একজন মুদি দোকানি হয়েও আদালতে উপস্থিত হয়ে নিজেকে সাংবাদিক পরিচয় দিয়েছিলেন। এতে আদালত বিস্ময় প্রকাশ করেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে