হিরো আলমের ওপর হামলা, যুক্তরাষ্ট্র ও ইইউসহ বিচার চাইলো ১৩ দূতাবাস

0
24

ঢাকা-১৭ আসনের প্রার্থী হিরো আলমের সঙ্গে উপনির্বাচনের সময় সহিংসতার ঘটনায় ইউরোপিয়ান ইউনিয়নসহ ১৩ দেশ যৌথ বিবৃতি দিয়েছে।

হিরো আলমের ওপর হামলার ঘটনায় নিন্দা জানিয়ে যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়, গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় সহিংসতার কোনো স্থান নেই। আমরা পূর্ণ তদন্ত ও দোষীদের জবাবদিহিতার দাবি জানাই। আসন্ন নির্বাচন যাতে অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হয় সেজন্য আমরা সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহ্বান জানাই।

বিবৃতি দাতারা হচ্ছে- কানাডা, ডেনমার্ক, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি, নেদারল্যান্ড, নরওয়ে, স্পেন, সুইডেন, সুইজারল্যান্ড, যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন ডেলিগেশন।

এর আগে হিরো আলমের ওপর হামলার ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ ক‌রে‌ বাংলাদেশে জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারী গো‌য়েন লুইস। এক টুইট বার্তায় এ উদ্বেগের কথা জানান তিনি।

টুইট বার্তায় সহিংসতা ছাড়া নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য প্রত্যেকের মৌলিক মানবাধিকার নিশ্চিত ও সুরক্ষিত করার আহ্বান জানান গোয়েন লুইস। সোমবার ঢাকা-১৭ আসনে উপনির্বাচনের শেষ সময়ে রাজধানীর বনানী বিদ্যানিকেতন ভোটকেন্দ্রের সামনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিরো আলমের ওপর হামলার ঘটনা ঘটে। পরে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এদিকে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে উঠে আসে হিরো আলমের ওপর হামলার প্রসঙ্গ। এ সময় এক সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলার বলেন, গণতান্ত্রিক নির্বাচনে এ ধরনের রাজনৈতিক সহিংসতার কোনো স্থান নেই। আমরা বাংলাদেশ সরকারকে সহিংসতার যেকোনো প্রতিবেদন পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে, স্বচ্ছভাবে ও নিরপেক্ষভাবে তদন্ত করতে এবং সহিংসতার সঙ্গে জড়িত অপরাধীদের জবাবদিহিতার আওতায় আনার জন্য উৎসাহিত করি।

বাংলাদেশ সরকার অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন আয়োজন করবে- এমন প্রত্যাশার পুনর্ব্যক্ত করে তিনি বলেন, যক্তরাষ্ট্র নির্বাচন পরিস্থিতি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করবে।