৪৫ বছর পর প্রাণঘাতী সংঘর্ষে জড়াল চীন-ভারতের সেনারা

0
128

লাদাখের গালওয়ান ভ্যালিতে ভারত ও চীনের সেনাবাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষে দুপক্ষের বেশ কয়েকজন সেনা হতাহত হয়েছেন। সোমবার (১৫ জুন) রাতের ওই সংঘর্ষে এক কর্নেলসহ তিন সেনা নিহতের কথা জানিয়েছে ভারত। খবর বিবিসির। এদিকে চীনের সরকারি সংবাদমাধ্যম গ্লোবাল টাইমসের বরাতে আনন্দবাজারের খবরে বলা হয়েছে, দুপক্ষের সংঘর্ষে চীনেরও পাঁচ সেনা নিহত হয়েছেন এবং আরো ১১ জন আহত হয়েছেন।সম্প্রতি লাদাখ সীমান্তে দুদেশের চরম উত্তেজনার সবচেয়ে গুরুতর অবস্থা এটি। এর আগে দুদের সেনাদের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণহানীর ঘটনা ঘটেছিল ৪৫ বছর আগে। ১৯৭৫ সালে অরুণাচল প্রদেশে ভারত-চীন সীমান্তের খুব কাছে চীনা বাহিনীর চালানো এক হামলায় ভারতের আসাম রাইফেলসের চারজন জওয়ান নিহত হয়েছিলেন।আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা এএফপি টুইট করেছে, বেইজিং অভিযোগ করেছে যে ভারত সীমান্ত অতিক্রম করে চীনা বাহিনীর সদস্যদের ওপর আক্রমণ চালিয়েছে।চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ানকে উদ্ধৃত করে জানানো হয়েছে, চীনের অভিযোগ সোমবার ভারত দুই দফা সীমান্ত অতিক্রম করে চীনের সৈন্যদের উস্কানি দিয়েছে এবং তাদের ওপর হামলা চালিয়েছে, যার ফলস্বরুপ এ প্রাণঘাতী সংঘর্ষ ঘটেছে।তবে ভারতীয় সেনাবাহিনী জানিয়েছেন, গত রাতে গালওয়ান ভ্যালিতে যখন ‘ডি-এসক্যালেশন’ বা উত্তেজনা প্রশমনের প্রক্রিয়া চলছিল তখনই দুপক্ষের মধ্যে তীব্র সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে এবং তাতে দুপক্ষেই বেশ কয়েকজন হতাহত হন।ভারতের দিকে তিনজন নিহত হওয়ার খবর জানানো হলেও কোনো চীনা সৈন্য হতাহত হয়েছে কিনা সে ব্যাপারে ভারতীয় সেনাবাহিনী কোনো মন্তব্য করেননি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে