৭১’র ভয়াবহতা না পারলেও জব্বারের বলী বন্ধ করলো করোনা

0
196

করোনাভাইরাসের কারণে চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী জব্বারের বলী খেলা ও বৈশাখী মেলা স্থগিত করা হয়েছে। শত বছরের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো এই কুস্তি প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হচ্ছে না এবার। অন্যদিকে, বৈশাখী মেলা স্থগিত হওয়ায় দেশের বিভিন্ন প্রান্তের কুটির শিল্পের ব্যবসায়ীরা লোকসানের মুখে পড়বে বলে জানায় মেলা আয়োজক কমিটি।

ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনে বাঙ্গালী যুব সমাজকে একত্রিত করার লক্ষ্যে ১৯০৯ সাল থেকে চট্টগ্রামে অনুষ্ঠিত হয়ে আসছিলো জব্বারের বলী খেলা। বদরপাতি এলাকার ধনাঢ্য ব্যবসায়ী আবদুল জব্বার সওদাগর এই কুস্তি খেলার প্রচলন করেছিলেন।বাংলা পঞ্জিকা অনুসারে প্রতি বছর ১২ বৈশাখ লালদিঘীর ময়দানে অনুষ্ঠিত হয় বলী খেলা। ঐতিহ্যবাহী এই খেলায় দেশের নানা প্রান্ত থেকে কুস্তিগিররা অংশগ্রহণ করতো। আর এই খেলাকে কেন্দ্র করে কয়েক কিলোমিটার এলাকা জুড়ে অনুষ্ঠিত হত বৈশাখী মেলা। তবে করোনা আতঙ্কের কারণে স্থগিত করা হয়েছে জব্বারের বলী খেলা ও বৈশাখী মেলা। শত বছরের ইতিহাসে প্রথমবারের এই কুস্তি প্রতিযোগিতা বন্ধ করা হয়েছে বলে জানান জব্বার আলীর বংশধরেরা।জব্বার আলীর বংশধর শত্তকত আনোয়ার বাদল, ‘১৯৭১ সালের যুদ্ধের সময়েও এই এপ্রিল মাসে বলী খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছিল। কিন্তু এখন এই মহামারী করোনাভাইরাসের কারণে তা বন্ধ করা হয়েছে।’অন্যদিকে, বৈশাখী মেলায় বিভিন্ন কুটির শিল্পের পসরা সাজিয়ে হাজির হতো দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা ব্যবসায়ীরা। মেলা স্থগিত হওয়ায় কুটির শিল্পের ব্যবসায়ীদের লোকসান গুণতে হবে বলে জানায় জব্বারের বলী খেলা ও বৈশাখী মেলা আয়োজক কমিটি সভাপতি।করোনা মহামারী কেটে গেলে আবারো যথানিয়মে এই কুস্তি প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে বলে জানান আয়োজকরা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে