হাটহাজারীতে আইসোলেশন সেন্টার গড়তে এগিয়ে এলেন তরুণ ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর

0
159

হাটহাজারীতে আইসোলেশন সেন্টার গড়তে এগিয়ে এলেন তরুণ ব্যবসায়ী ও আবুল কাশেম ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম। হাটহাজারীর মেখলে কোভিট-১৯ করোনায় আক্রান্ত রোগীদের প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা দেওয়ার লক্ষ্যে আবুল কাশেম ফাউন্ডেশন’র উদ্যোগে অস্থায়ী আইসোলেশন সেন্টার করার কার্যক্রম হাতে নেয়া হয়েছে।

উদ্যোগটি সফল করার জন্য মেখলের সমাজ সেবক, রাজনীতিবিদ, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক, বিভিন্ন পেশাজীবী ও সামাজিক সংগঠন বিশেষ করে “ডাক্তার” সহ দেশ বিদেশের সকল ভাই বোনদের এই মানবিক কাজে সহযোগিতা কামনা করে ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম জানান, এই মানবিক কাজে যারা নিজেকে সম্পৃক্ত করতে চান তাদের সশরীরে বা ফেইসবুক কমেন্ট বক্স বা ম্যাসেঞ্জারে নাম ও মোবাইল নাম্বার দিতে পারবেন। শীঘ্রই গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গদের সুপরামর্শ নিয়ে আইসোলেশন সেন্টার পরিচালনা করার জন্য শক্তিশালী একটি কমিটি গঠন করা হবে বলেও জানান তিনি। তিনি আরো জানান, বর্তমানে চট্টগ্রাম শহরে কোন হাসপাতালে সিট খালি নাই। আক্রান্ত রোগীদের অক্সিজেন সাপোর্টও দিতে পারছেনা। তাই মেখলের কোন মানুষ যাতে চিকিৎসার অভাবে মারা না যায়। দলমত নির্বিশেষে এই মানবিক কাজে সবাইকে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়ে কাউকে কোন প্রকার বিরোধিতা না করার জন্য অনুরোধ করেন তিনি।

হাটহাজারীর কেউ কোভিট-১৯ করোনায় আক্রান্ত হলে আইসোলেশন সেন্টার বা চট্টগ্রামের ম্যাক্স হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়ার জন্য চেষ্টা করা হবে বলে জানান মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম।

হাটহাজারীর মেখলের কৃতি সন্তান ডাক্তার আবু তৈয়ব ও আরো কয়েকজন ডাক্তারদের নিয়ে একটি টিম গঠন করে ইউনিয়ন এর সর্বস্তরের জনসাধারণ কে চিকিৎসা সেবা দেওয়ার জন্যই এই সেন্টার করা হবে। যার নাম হবে “মেখল মানবিক আইসোলেশন সেন্টার”।

ইতিমধ্যে ইছাপুরসহ কয়েকটি স্কুল পরিদর্শন করা হয়েছে সেন্টারটি করার জন্য। সবাইকে নিয়ে বসেই একটি স্কুল নির্ধারণ করা হবে যাতে সবদিক দিয়ে সকলের সুবিধা হয়। স্কুল নির্ধারনের পর পরই কত শয্যা করা যায় তাও নির্ধারন করা হবে। প্রচারের জন্য “মেখল মানবিক আইসোলেশন সেন্টার” নামক একটি ফেইসবুক গ্রুপ আইডি খোলা হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে